mous">
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন

গজারিয়া সংঘবদ্ধভাবে এক অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষন

ওসমান গনি
গজারিয়া প্রতিনিধিঃ মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে একই গ্রামের দুই যুবকের বিরুদ্ধে।গজারিয়া উপজেলার গুয়াগাছিয়া ইউনিয়নের একটি গ্রামে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে ওই ছাত্রী।
সে গণমাধ্যমকে জানায়, তার বাবা রিকশাচালক, মা গৃহকর্মী। ঘটনার রাতে বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে ফোনে কথা বলার সময় একই গ্রামের দুই যুবক তার মুখ চেপে ধরে পাশের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন। সেই ঘটনার ভিডিও করেন তারা। পাশের একটি বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠান চলায় সেখানে উচ্চ শব্দে গান বাজানো হচ্ছিল। এ কারণে তার চিৎকার কেউ শুনতে পাননি।
গুরুতর আহত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে নেয়ার পথে ওই দুই যুবক ও তাদের স্বজনরা বাধা দেয়ার চেষ্টা করেন। এতে ব্যর্থ হয়ে ছাত্রীর পরিবারের ওপর হামলা চালানো হয় বলেও অভিযোগ উঠেছে।

ছাত্রীর পরিবার জানায়, আহত অবস্থায় মেয়েকে হাসপাতালে নেয়ার পথে ধর্ষক ও তাদের স্বজনরা হামলা চালান। এই পরিস্থিতিতে তাদের বড় মেয়ে ৯৯৯-এ ফোন দিলে গজারিয়া থানা-পুলিশের একটি দল গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

গজারিয়া থানার উপপরিদর্শক মো. মাঈন উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তাৎক্ষণিক যান তারা। প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা মিলেছে।

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর মা শুক্রবার দুই জনের নাম উল্লেখ করে গজারিয়া থানায় মামলা করেছেন।

গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রইছ উদ্দিন (ওসি) জানান, সংঘবদ্ধ ধর্ষণের একটি মামলা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আসামিদের তিন স্বজনকে থানায় আনা হয়েছে। আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে।

ওসি আরও জানান, ছাত্রীকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাকে মুন্সিগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।



ফেজবুক পেইজে লাইক দিন